প্রতিবাদ করায় পরিণীতি চোপড়ার ‘পরিনতি’

মুম্বাইয়ে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদী মিছিলে সমর্থন জানিয়েছিলেন বলিউড অভিনেত্রী পরিণীতি চোপড়া। এজন্য ভারত সরকারের প্রকল্প ‘বেটি বাঁচাও-বেটি পড়াও’ থেকে বাদ পড়তে হল অভিনেত্রীকে।

দিল্লির জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা বিক্ষোভে হামলার প্রতিবাদে পরিণীতি টুইট করেছিলেন, দেশের নাগরিকরা নিজের মতামত পেশ করতে গিয়ে যদি এরকম ঘটনার শিকার হন, তাহলে নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের কথা ভুলে যান। বরং এরকম কোনও বিল পাশ করুন, যাতে আমাদের দেশকে আর গণতান্ত্রিক না বলা হয়। প্রতিবাদ করার জন্য যদি নির্বিচারে নির্দোষ মানুষদের এভাবে মারা হয়, তাহলে বলব আমাদের দেশ আর গণতান্ত্রিক রইল না।

 

পরিণীতি এই টুইটের পরই শোনা যায়, তাকে ‘বেটি বাঁচাও-বেটি পড়াও’-এর প্রচারের ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর পদ থেকে বাদ দেওয়া হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে অনেকেই বলেছেন, ব্র্যান্ড অ্যাম্বাসেডর পদ থেকে পরিণীতিকে সরিয়ে দিয়ে কারও কণ্ঠরোধ করা যাবে না।

নাগরিকত্ব সংশোধনী আইনের প্রতিবাদে বলিউড তারাকারও মাঠে। রাহুল বোস, সুশান্ত সিং, ফারহান আখতার, হুমা কোরেশি, স্বরা ভাস্কর, জোয়া আখতার, রাকেশ ওমপ্রকাশ মেহেরা-সহ আরও অনেকে বিভিন্নভাবে মতামত দিচ্ছেন।

      Probashi Barta Corporation (PBC24 - USA)