শিরোনাম
  • রাজধানীতে গুলি করে আড়াই লাখ টাকা ছিনতাই

  • সিলেটে জাল টাকা ও মেশিনসহ ৩ জন আটক

  • শৈলকূপায় গলিত লাশ উদ্ধার
  • বাসের মধ্যে প্রসব, সহৃদয় চালক নিয়ে গেলেন হাসপাতালে
  • মুন্সীগঞ্জে ইউপি চেয়ারম্যানের স্ত্রীর লাশ উদ্ধার
  • টাঙ্গাইলে নারী এনজিও কর্মীকে কুপিয়ে টাকা ছিনতাই
চিরসত্য
আর যখন তাদেরকে বলা হয়, অন্যান্যরা যেভাবে ঈমান এনেছে তোমরাও সেভাবে ঈমান আন, তখন তারা বলে, আমরাও কি ঈমান আনব বোকাদেরই মত! মনে রেখো, প্রকৃতপক্ষে তারাই বোকা, কিন্তু তারা তা বোঝে না। সুরা আল-বাকারা, আয়াতঃ ১৩
সাম্প্রতিক
প্রবন্ধ
দেশ আজ রক্ত পিপাসু দানবের হাতে বন্দী': গয়েশ্বর চন্দ্র রায়

অবৈধ সরকারের কাছে বিএনপির নেতাকর্মীদের মুক্তির দাবি করে লাভ নেই বলে মন্তব্য করে বিএনপির স্থায়ী কমিটির সদস্য গয়েশ্বর চন্দ্র রায় বলেছেন, দেশ আজ রক্ত পিপাসু দানবের হাতে বন্দী। এ দানবের হাত থেকে দেশকে বাঁচাতে হবে। এর ফলে দেশের মানুষের আশা আকাক্সক্ষা পূরণ হবে।

মঙ্গলবার দুপুরে জাতীয় প্রেসক্লাবের মিলনায়তনে যুবদলের সভাপতি সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ সকল রাজবন্দীদের নিঃশর্ত মুক্তির দাবিতে যুব সমাবেশে তিনি এসব কথা বলেন।

গয়েশ্বর চন্দ্র বলেন, দেশবাসীকে আওয়ামী লীগের যন্ত্রণা থেকে মুক্তি দিতে হবে। মানুষ শুধু বদ্ধ ঘরে বক্তব্য শুনতে চায় না। রাজপথে থাকতে হবে। আন্দোলনের মাধ্যমে সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ সকল বন্দীদের মুক্তি দিতে সরকারকে বাধ্য করা হবে।

তিনি বলেন, শহীদ প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমানের রাজনৈতিক জীবনে যদি ভুল থাকে, সেটা হলো শেখ হাসিনাকে দেশে ফিরিয়ে আনা এবং তাকে রাজনীতি করার সুযোগ করে দেয়া।

তিনি বলেন, ‘দেশবাসীকে যন্ত্রণা থেকে আমাদের মুক্তি দিতে হবে। অবৈধ সরকারের কাছে মুক্তির দাবি করে লাভ নেই। মানুষ শুধু বদ্ধ ঘরে বক্তব্য শুনতে চায় না। রাজপথে থাকতে হবে। সৈয়দ মোয়াজ্জেম হোসেন আলালসহ সকল বন্দীর মুক্তি দিতে সরকার বাধ্য হয় সে পরিবেশ সৃষ্টি করতে হবে ‘

সভায় বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব অ্যাডভোকেট রুহুল কবির রিজভী আহমেদ বলেন, হাসিনা দেশকে বসবাসের তিক্ত পরিবেশ সৃষ্টি করে সিংহাসনে বসে থাকতে চান। কিন্তু তিনি জানেন না বাংলার জনগণ যখন এক হবে তখন আর সিংহাসন রক্ষা হবে না।

সৈয়দ আশরাফের বক্তব্যের প্রতিবাদ জানিয়ে রিজভী বলেন, ১৫ আগস্টসহ অন্যান্য খুনের জন্য বিএনপিকে দায়ী না করে নিজেরা আয়নার সামনে দাঁড়ান। তাহলে দেখবেন কাদের চেহারা ভেসে উঠে। তারা আপনাদের সঙ্গেই আছে। বরং আমরা বলতে পারি জিয়াউর রহমানকে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীরাই হত্যা করেছে।

যুবদলের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি অ্যাডভোকেট আব্দুস সালাম আযাদের সভাপতিত্বে এতে আরো বক্তব্য দেন বিএনপির যুগ্ম মহাসচিব বরকত উল্লাহ বুলু, যুবদলের সাধারণ সম্পাদক সাইফুল আলম নীরব, ঢাকা মহানগরের যুবদল উত্তরের সাধারণ সম্পাদক এসএম জাহাঙ্গীর প্রমুখ।

Back To Top